ফেসবুকে গর্জন, প্রেক্ষাগৃহ নির্জন

Spread the love
b77730d51228bf98d8c492ab65d0de97 5a4459643c672 1 - ফেসবুকে গর্জন, প্রেক্ষাগৃহ নির্জন
শাকিব খান ও আরিফিন শুভ

হাতে গোনা দু-একটি সিনেমা ছাড়া বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে এ বছর মুক্তি পাওয়া কোনো সিনেমাই ব্যবসায়িকভাবে সাফল্যের মুখ দেখেনি। ব্যবসায়িক সাফল্য না থাকলেও বেশির ভাগ সিনেমা নিয়ে ফেসবুকে ছিল গর্জন। সিনেমা-সংশ্লিষ্ট মানুষেরা ফেসবুকে চটকদার প্রচারণা চালিয়ে দর্শকের আগ্রহ অনেক গুণ বাড়িয়ে দেন। ফেসবুকের এসব প্রচারণায় ফাঁদে পা দিয়ে যাঁরা প্রেক্ষাগৃহে গিয়েছেন, বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ততটাই হতাশ হয়েছেন তাঁরা। কেউ আবার বলেছেন, ফেসবুকে সিনেমা নিয়ে যতই তর্জন-গর্জন দেখা গেছে, প্রেক্ষাগৃহ ছিল ঠিক ততটাই নির্জন। কোনো কোনো প্রেক্ষাগৃহ কর্তৃপক্ষ দর্শক না থাকার কারণে ছবির প্রদর্শনী বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়।

দর্শকদের কেউ কেউ আবার বলেছেন, চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে অকারণে টাকা নষ্ট না করে মন দিয়ে, যত্ন নিয়ে সিনেমা বানালে দর্শকই মুখে মুখে প্রচারণা চালাবেন। চটকদার প্রচারণা চালিয়ে বেশি দিন টিকে থাকা যাবে না। আমাদের প্রযোজক, পরিচালক আর নায়ক-নায়িকাসহ কলাকুশলীরা যদি ভালোবাসা দিয়ে সিনেমা না বানান, তাহলে এসব প্রচারে কোনো ফল হবে না। হলে আসবে না কোনো দর্শক।
4ab99f8f1e76907fc15777afa963b66e 5a445976108b7 - ফেসবুকে গর্জন, প্রেক্ষাগৃহ নির্জন

‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতে অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি

৫৫ সিনেমা, মাত্র ২টি হিট
২০১৬ সালের শেষ দিকে দেখা যায়, সিনেমার প্রতি নানা শ্রেণি ও পেশার মানুষের আগ্রহ বাড়ছে। শাকিব খানের ‘শিকারি’ আর চঞ্চল চৌধুরীর ‘আয়নাবাজি’ ছবির কারণে অনেক দিন পর প্রেক্ষাগৃহবিমুখ দর্শক আবারও যেন নড়েচড়ে বসেন। বলা যেতে পারে, নতুন নতুন দর্শক বাংলাদেশি সিনেমা দেখতে হুমড়ি খেয়ে পড়েন। দর্শক চাহিদার কারণে সিনেমা দুটিকে টানা কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রেক্ষাগৃহের মালিকেরা প্রদর্শন করতে বাধ্য হন। বছরের শেষ দিকে বাংলাদেশি সিনেমার এমন সাফল্য নতুন বছরে অনেক নির্মাতাই আশায় বুক বেঁধেছিলেন। সবার ধারণা ছিল, হয়তো ২০১৭ সালে এই ধারাবাহিকতা থাকবে এবং বাংলাদেশি সিনেমার সাফল্যের পারদ ঊর্ধ্বমুখী হবে।

চলতি বছর অর্ধশতাধিক সিনেমা মুক্তি পেলেও বছরটি সিনেমার বাইরের নানা ঘটনায় মুখর ছিল। হাতেগোনা দু-একটি সিনেমা ব্যবসায়িক সাফল্য পেয়েছে ঠিকই, কিন্তু সারা বছর চলচ্চিত্রপাড়া চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে নায়ক-নায়িকার দ্বন্দ্ব, যৌথ প্রযোজনার সিনেমাকে কেন্দ্র করে মিছিল-মিটিং, নানা দাবিতে মানববন্ধন, শাকিব-অপুর সংসার ও সন্তান নিয়ে টানাপোড়েন, শাকিব খানকে বয়কট করাসহ নানা ঘটনায় সরগরম ছিল। চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মতে, বছরটি যেমন আশার ছিল, তেমনি একই সঙ্গে ছিল হতাশার।

সান্ত্বনা শুধু ব্যবসাসফল দুটি সিনেমা
বছরের শুরুটা হয় রকিবুল আলমের ‘মাস্তান ও পুলিশ’ সিনেমা মুক্তির মধ্য দিয়ে। আর শেষ হতে যাচ্ছে বদরুল আনাম সৌদের ‘গহীন বালুচর’ সিনেমা দিয়ে। ২৯ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে ‘গহীন বালুচর’। এই ছবিই হবে ২০১৭ সালের শেষ সিনেমা। এ ছাড়া বছরের অন্য সময়ে মুক্তি পেয়েছে আরও ৫৩টি সিনেমা। মুক্তি পাওয়া অর্ধশতাধিক সিনেমার মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচনা ছিল শাকিব খান অভিনীত ‘নবাব’। ঈদুল ফিতরে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমা নতুন করে আলোচনায় আনে শাকিব খানকে। ‘নবাব’ সিনেমায় গ্যাটআপ, লুক আর উপস্থাপনে ভিন্নতায় আলোচনার ছিলেন শাকিব। দর্শক চাহিদার পাশাপাশি এটি ব্যবসায়িক সাফল্য পায়।

৬ অক্টোবর মুক্তি পায় আরিফিন শুভ অভিনীত ‘ঢাকা অ্যাটাক’। মুক্তির প্রথম দিন থেকেই সিনেমাটি নিয়ে দর্শকের আগ্রহের পাল্লা বাড়তে থাকে। দেশে ও দেশের বাইরে এই সিনেমা দর্শকের কাছে প্রশংসা কুড়িয়েছে। নাটক বানিয়ে হাত পাকানো নির্মাতা দীপঙ্কর দীপন তাঁর প্রথম ছবি ‘ঢাকা অ্যাটাক’ দিয়ে বাজিমাত করেন। বড় বাজেটের এই সিনেমা প্রশংসা কুড়ানোর পাশাপাশি ব্যবসায়িকভাবে সাফল্য পেয়েছে বলে মনে করছেন সিনেমা ব্যবসায়ীরা। এদিকে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ মুক্তির পর চিত্রনায়ক আরিফিন শুভকে নিয়েও সবাই নতুন করে ভাবতে শুরু করেছেন।
c6f4b7f1be33b863f5be9e16b21642d4 5a44598850afb - ফেসবুকে গর্জন, প্রেক্ষাগৃহ নির্জন

‘ডুব’ ছবিতে তিশা ও ইরফান খান

সাফল্য নয়, আলোচিত
ব্যবসায়িক সাফল্য না পেলেও বছরব্যাপী কয়েকটি সিনেমা ছিল আলোচনায়। এসব সিনেমার মধ্যে আছে বুলবুল বিশ্বাসের ‘রাজনীতি’। এই সিনেমার মধ্য দিয়ে দীর্ঘ বিরতির পর প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় অপু বিশ্বাসের সিনেমা। এ ছাড়া বছরব্যাপী মুক্তি পাওয়া অন্য সিনেমার মধ্যে যেগুলো আলোচনায় ছিল, সেগুলো হচ্ছে বাবা যাদবের ‘বস টু’, ফাখরুল আরেফিনের ‘ভুবনমাঝি’, অনিমেষ আইচের ‘জিরো ডিগ্রি’, জাকির হোসেন রাজুর ‘প্রেমী ও প্রেমী’, মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘ডুব’, তৌকীর আহমেদের ‘হালদা’, মালেক আফসারীর ‘অন্তর জ্বালা’।

যৌথ প্রযোজনা নিয়ে আন্দোলন সংগ্রাম
যৌথ প্রযোজনায় সিনেমা নির্মাণে অনিয়ম নিয়ে অভিযোগ তুলে মিছিল, মিটিংয়ে মুখরিত ছিল এ বছরের বড় একটা সময়। হাতাহাতি, লাঞ্ছনার মতো ঘটনাও ঘটেছে এই আন্দোলনকে ঘিরে। যৌথ প্রযোজনা বিতর্কে জাজ মাল্টিমিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত কলাকুশলী, প্রদর্শক ও বুকিং এজেন্ট সমিতির মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড়ায় চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট কয়েকটি সংগঠন। যৌথ প্রযোজনার নিয়ম না মেনে নির্মিত ‘নবাব’ ও ‘বস ২’ ছবি দুটির মুক্তি ঠেকাতে এফডিসি থেকে চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড অভিমুখে মিছিল বের করেন। চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড ঘেরাও করেন। সেখানেই ঘেরাওকারীদের হাতে লাঞ্ছিত হন প্রেক্ষাগৃহ মালিক সমিতির সভাপতি ও মধুমিতা হলের মালিক ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ। শুধু তা-ই নয়, ঈদে যখন ছবি মুক্তি দেওয়ার প্রস্তুতি চলছিল, তখন চিত্রনায়ক শাকিব খানের চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সদস্যপদ বাতিল করে ১৬টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার। সেই সঙ্গে তাঁকে বিএফডিসিতে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়। এ ছাড়া যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র নির্মাণে অনিয়মের পক্ষ নেওয়ায় তথ্যমন্ত্রীর সব অনুষ্ঠান বর্জন ও তাঁর পদত্যাগের দাবি করে সংগঠনটি। এফডিসিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন নেতারা। জাজ মাল্টিমিডিয়া স্বত্বাধিকারী আবদুল আজিজকে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির পদ থেকেও বহিষ্কার করার ঘোষণা দেওয়া হয় এ সময়।

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন ও শিল্পীদের বিভক্তি
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে তারকাদের মধ্যে সরাসরি পক্ষ-বিপক্ষ দুটি পক্ষে বিভক্ত হওয়ার বিষয় দৃশ্যমান ছিল এ বছর। এ কারণে সমালোচনার মুখে পড়েন চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। এ বছর ৮ এপ্রিল চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনী ডামাডোল শুরু হয়। এদিন থেকে নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়। ১৩ এপ্রিল মনোনয়নের আবেদনপত্র বিক্রি শুরু হয়। নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জন্য প্রথম থেকেই মিশা সওদাগর-জায়েদ খান, ওমর সানি-অমিত হাসান ও ড্যানি সিডাক-ইলিয়াস কোবরা; এই তিনটি প্যানেল প্রচার-প্রচারণা শুরু করে। জাতীয় নির্বাচন থেকে শুরু করে পাড়া-গ্রামের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যা ঘটে, এখানেও অনেকটা তেমনই ঘটতে থাকে। প্রকাশ্যে, গোপনে, সভা-সমাবেশে, আড্ডায়, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক প্রার্থী আরেক প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিষোদ্‌গার করতেই থাকেন। প্রকাশ না করলেও ওই সময় থেকে এক ধরনের দেয়াল তৈরি হয়। নির্বাচনকে ঘিরে নানা গুজব, ভোটার টানতে ভীতি প্রদর্শন, টাকার বেনামি ওড়াউড়িসহ নানা প্রশ্ন ঘুরপাক খায় চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মনে। চলচ্চিত্রপাড়া যেন আরও অস্থির হয়ে ওঠে। শিল্পীদের কেউ কেউ এফডিসিতে আসা পর্যন্ত বন্ধ করে দেন। এফডিসিকে কেন্দ্র করে এমন সব কর্মকাণ্ডে অনেক প্রযোজকও সিনেমাতে লগ্নি করার আগ্রহ হারান। নেতিবাচক ধারণা নিয়ে তাঁরা ছবি প্রযোজনা থেকে নিজেদের সরিয়ে নেন। কয়েকজন নির্মাতা বেশ কয়েকটি ভালো মানের ছবি দিয়ে আবার পুরো বছরের চিত্রে আলোর ঝলকানি দিয়ে মুখরিত করেছিলেন দর্শক হৃদয়। সে ছবিগুলোর প্রযোজকেরাও তাঁদের টাকা ফেরত পেয়েছেন।

আলোচিত নায়ক
দেড় দশক ধরে ঢাকাই সিনেমায় নির্ভরযোগ্য নায়ক হিসেবে শাকিব খানই প্রযোজক ও পরিচালকের একমাত্র ভরসা। শাকিব খানকে যেন কেউ টপকাতে পারছেন না। শাকিব খানকে টপকে যেতে না পারলেও এ বছর আরও দুজন নায়ককে নিয়ে নির্মাতা ও প্রযোজক আশা-ভরসা করতে পারছেন। এঁদের মধ্যে এগিয়ে আছেন আরিফিন শুভ। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ শুভকে সেই আলোচনার জায়গা করে দিয়েছে। এ ছাড়া নতুন প্রজন্মের আরেক নায়ক রোশানকে নিয়ে সম্ভাবনা দেখছেন দেশের সিনেমার প্রযোজক ও পরিচালকেরা। অনেকের মতে, এই নায়ককে ভালো গল্প আর ভালো বাজেটের সিনেমায় ঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারলে সুফল বের করে আনা সম্ভব। এ বছর বাপ্পী আর সাইমনের কয়েকটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। তাঁদের প্রতি পরিচালকেরা যদি যত্ন নেন, তাহলে তাঁরা নায়কের খরা থেকে দেশের সিনেমাকে বাঁচাতে পারবেন।
5b884452346d9f8a946524663383e822 5a44599cc311c - ফেসবুকে গর্জন, প্রেক্ষাগৃহ নির্জন

‘জি সিনে অ্যাওয়ার্ডস’ হাতে জয়া আহসান

আলোচিত নায়িকা
এ বছর অপু বিশ্বাসের একটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। ‘রাজনীতি’ নামের এই সিনেমা নিয়ে তিনি যতটা আলোচনায় ছিলেন, তার চেয়ে বেশি ছিলেন নিজের ব্যক্তিজীবন নিয়ে। স্বামী, সংসার আর সন্তানকে নিয়ে নানা মন্তব্যে এ বছর এপ্রিল থেকে এখন পর্যন্ত তিনি সবখানে আলোচনার বড় বিষয়। শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ের ব্যাপার ফাঁস করতে এ বছরের ১০ এপ্রিল টেলিভিশনের পর্দায় হাজির হয়ে নিজেকে ‘টক অব দি কান্ট্রি’তে পরিণত করেন অপু। ধারাবাহিকভাবে এরপরও বিভিন্ন টেলিভিশন আর পত্রিকায় শাকিব খান প্রসঙ্গে মুখরোচক বিভিন্ন কথার কারণে সিনেমার কাজের চেয়ে অপু বিশ্বাস ব্যক্তিজীবন নিয়ে বেশি আলোচিত ছিলেন। শাকিব খানের সংসার ভাঙার কারণ হিসেবে অপু পরোক্ষভাবে বুবলীর দিকে অভিযোগের তির ছোড়েন। তবে এসব নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে বুবলী নিজেকে কাজের দিকে বেশি মনোযোগী রাখেন। শাকিব খানের সঙ্গে একের পর এক সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়ে আলোচনায় ছিলেন বুবলী। পাশাপাশি এ বছর শাকিব খানের সঙ্গে বুবলীর দুটি সিনেমা মুক্তি পায়।

ভারতীয় অভিনেতা ইরফান খানের সঙ্গে ‘ডুব’ সিনেমায় অভিনয় করে চলচ্চিত্র ঘরানার মানুষের কাছে আলোচনায় ছিলেন ছোট পর্দার অভিনেত্রী তিশা। এসবের বাইরেও নন্দিত কথাসাহিত্যিক হ‌ুমায়ূন আহমেদের জীবন নিয়ে ‘ডুব’ নির্মিত হয়েছে— এমন অভিযোগের কারণে সারা বছর মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর এই সিনেমাটি বেশ আলোচিত ছিল। হ‌ুমায়ূন আহমেদ স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন আর মোস্তফা সরয়ার ফারুকী এই সিনেমা নিয়ে পাল্টাপাল্টি অবস্থান নেন। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ দিয়ে শুভ যতটা আলোচনায় ছিলেন, ঠিক ততটাই নিষ্প্রভ মনে হয়েছিল এই সিনেমার প্রধান নায়িকা মাহিয়া মাহিকে।

অর্জন যখন দেশের বাইরে
১৯ ডিসেম্বর ভারতের মুম্বাইয়ে বিকে গ্রাউন্ডসে অনুষ্ঠিত ‘জি সিনে অ্যাওয়ার্ডস’-এ সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পান বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসান। তিনি ভারতের বাংলা ছবি ‘বিসর্জন’-এ অভিনয় করে এ পুরস্কার অর্জন করেন। পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের এই সিনেমার মধ্য দিয়ে দেশের বাইরে জয়ার সুনাম ছড়ায়।